ঢাকা, ১৫ জুলাই, ২০২৪ || ৩১ আষাঢ় ১৪৩১
Biz Barta :: বিজ বার্তা
Place your advertisement here

‘অটিজম আক্রান্ত শিশুদের আঘাত করবেন না’

বিজবার্তা রিপোর্ট :

প্রকাশিত: ৬ এপ্রিল ২০২৪  


বিজবার্তা রিপোর্ট :

অটিজমে আক্রান্ত শিশুদের শারীরিক আঘাত করা থেকে বিরত থাকতে হবে। শিশুদের প্রতি সুন্দর সহজ, সরল ব্যবহার করতে হবে। তাদের জন্য খেলাধুলা এবং সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডের মাধ্যমে তাদের সুপ্ত প্রতিভা বিকাশের করে দিন।

 

বিশ্ব অটিজম সচেতনতা দিবস উপলক্ষে গেল মঙ্গলবার আলোচনায় এমন তাগিদ উঠে এসেছে। দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য ছিল- "সচেতনতা-স্বীকৃতি-মূল্যায়ন : শুধু বেঁচে থাকা থেকে সমৃদ্ধির পথে যাত্রা"। রাজধানীর মিরপুরে বেইট আলফা অটিস্টিক ফাউন্ডেশন এক আলোচনা সভা এবং অটিজমে আক্রান্ত শিশুদের চিত্রাঙ্কণ প্রতিযোগিতার আয়োজন করে।

 

চিত্রাঙ্কণ শেষে প্রায় দুই শতাধিক অটিজমে আক্রান্ত শিশুদের হাতে বিভিন্ন রঙের খেলনা পুতুল এবং ঈদের পোশাক তুলে দেয়া হয়।

 

এ সময় অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি নাট্যব্যাক্তিত্ব ও আলোকচিত্রী শঙ্কর শাওজাল বলেন, অটিস্টিক শিশুদের জন্য একটি আলাদা জায়গা প্রয়োজন। যেখানে তারা নিজেদের ভাবনা আদান-প্রদান করতে পারবে।

 

অনুষ্ঠানের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, মুক্তিযুদ্ধে গিয়ে শিখেছি যে, কি ভাবে শিশুদের দৈনন্দিন জীবন কার্যক্রম পরিচালনা করতে হয়। এজন্য অটিস্টিক শিশুদের ন্যূনতম মৌলিক কাজ শেখাতে হবে।

 

অধ্যাপক ও চিত্রশিল্পী মো. রবিউল ইসলাম বলেন শিশুরা স্বাধীন ভাবে রঙের সাথে তাদের অনুভূতি প্রকাশ করতে সহোযোগিতা করে। তাই তাদের জন্য আমাদের আরো অনেক সচেতন থাকতে হবে।

 

নোঙর ট্রাস্ট চেয়ারম্যান সুমন শামস বলেন, অটিজমে আক্রান্ত শিশুদের শারিরীক আঘাত করা থেকে বিরত থাকতে হবে। শিশুদের প্রতি সুন্দর সহজ, সরল ব্যবহার করতে হবে।

 

আরো বক্তব্য রাখেন নারায়ণগঞ্জ চারুকলা অনুষদের অধ্যক্ষ শিল্পী সামছুল আলম, ডিজাইনার শাহরীন হক, ক্রিয়েটিভ ডিরেক্টর জনাব কাজল আরেফিন অমি, অভিনেতা এবং ডাক বাক্স ফাউন্ডেশনের সভাপতি জিয়াউল হক পলাশ।

 

চিত্রাঙ্কণ কর্মশালা পরিচালনা করেন চিত্রশিল্পী আশরাফুল কবির কনক। সমন্বয় করেছেন বেট আলফা অটিস্টিক ফাউন্ডেশনের সহ-সাধারণ সম্পাদক জনাব রকিব  হাওলাদার, ফাউন্ডেশনের সদস্য নোমিরা আহমদ এবং ফাউন্ডেশনের নাজিফা মিলা।

 

সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন ফাউন্ডেশনের সভাপতি আরমিন সোমা এবং সহ-সভাপতি জনাব রোমেল মোর্শেদ।

 

অটিজমে আক্রান্ত শিশু ও বয়স্কদের জীবনযাত্রার মান উন্নয়নে সহায়তার প্রয়োজনীয়তাকে তুলে ধরতে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদ ২০০৭ সালে ২ এপ্রিলকে বিশ্ব অটিজম সচেতনতা দিবস হিসেবে পালনের সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে।


Place your advertisement here
Place your advertisement here
Place your advertisement here
Place your advertisement here