ঢাকা, ১৪ অক্টোবর, ২০১৯ || ২৮ আশ্বিন ১৪২৬
Biz Barta :: বিজ বার্তা
Place your advertisement here

২০১৬ : মিশ্র অবস্থায় ছিল অর্থনীতি

প্রকাশিত: ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮  


অর্থনীতি ক্ষেত্রে ২০১৬ বছরটা ছিল মিশ্র। সামাজিক স্থিতিশীলতার ক্ষেত্রে আগের বছরের মতোই ধারাবাহিকতা বজায় ছিল। বিশেষ করে এই অর্থবছরের জন্য ৫ দশমিক ৮ শতাংশ মূল্যস্ফীতি যে লক্ষ্য ধরা হয় তার মধ্যেই মূল্যস্ফীতি এখন রয়েছে। বছরের প্রথম দিকে খাদ্য বহিভূত মূল্যস্ফীতি বেশ বেড়ে যাচ্ছিল, বছর শেষে খাদ্য মূল্যস্ফীতি বিশেষ করে চালের মূল্যস্ফীতি কিছুটা বাড়ে। তবে, সার্বিক মূল্যস্ফীতি লক্ষ্যের মধ্যেই রয়েছে। রিজার্ভের ক্ষেত্রে যে বৃদ্ধি তা বজায় আছে। যদিও রিজার্ভের ক্ষেত্রে এ বছর বড় ধরণের দুর্ঘটনা ঘটেছিল। এতো পরিমাণ রিজার্ভ রাখার প্রয়োজন আছে কি-না, না-কি এটা উন্নতমানের ব্যবস্থাপনা করে সেখান থেকে রিটার্ন বাড়ানো যায় তার চিন্তা ভাবনা চলছে।

বছরের শুরুতে বৈদেশিক বাণিজ্যের ক্ষেত্রে উদ্বৃত্ত ছিল। পরে সেটা কিছুটা কমলেও এখন উদ্বৃত্ত মোটামুটি আছে। রফতানির ক্ষেত্রে কিছুটা উত্তরণ ঘটেছে। আমদানির ক্ষেত্রে প্রবৃদ্ধি বেড়েছে, চলতিখাতে উদ্বৃত্তের পরিমাণ কিছুটা কমেছে। তার পেছনে অবশ্য বড় কারণ, রেমিটেন্সের ক্ষেত্রে বড় পতন। সার্বিকভাবে রাজস্বনীতি, মুদ্রানীতি এবং বৈদেশিক মুদ্রা ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রে স্বস্তিদায়ক অবস্থানে বছরের শুরুতে যেমন ছিল, বছরের শেষেও সেখানে রয়েগেছে। রাজস্বখাতে একটা বিশেষ অগ্রগতি উল্লেখ করা গেছে। তবে অর্থবছর ২০১৬ বাজেটে যে লক্ষ্য ছিল রাজস্ব অর্জন তারচেয়ে বেশি না। তবে তার আগের বছরের তুলনায় রাজস্ব আদায় জিডিপি’র প্রায় ১ শতাংশ বেড়েছে-এটা বেশ উল্লেখযোগ্য উন্নতি। তবে, ভ্যাট আইন বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে এ বছরের জুলাই-এ যে বাস্তবায়নের কথা ছিল, সেখান থেকে পিছিয়ে যেতে হয়েছে। ভ্যাট আইন বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে যেসব প্রতিবন্ধকতা দেখাগেছে তার কোন ধরণের সমাধান হয়নি। এডিপি বাস্তবায়নের চিরাচরিত যে সমস্যাগুলো ছিল এখনও তেমনি আছে। কিছুটা বাস্তবায়নের হার হয়তো বেড়েছে তবে বাস্তবায়নের যে প্রক্রিয়া দেখাযাচ্ছে বছরের শুরুতে খুব কম খরচ হয়, জুন মাসে হঠাৎ করে বেড়ে যায়-এটার কোন পরিবর্তন দেখাযাচ্ছে না। জিডিপি’র ক্ষেত্রে প্রবৃদ্ধির সংখ্যা নিয়ে কিছু বিভ্রান্তি থাকতে পারে তবে ভালো প্রবৃদ্ধি যে হয়েছে তা নিয়ে কোন বিতর্ক নেই। সাড়ে ৬ শতাংশের বেশি প্রবৃদ্ধি হয়েছে। এটা কি ৭ দশমিক ১ হলো না তার পেছনে কোন কারণ ছিল সেটার সংখ্যা মেলাতে গেলে কিছুটা সমস্যার মধ্যে পড়তে হয়।


Place your advertisement here
Place your advertisement here
Place your advertisement here
Place your advertisement here