শনিবার   ১৩ এপ্রিল ২০২৪   চৈত্র ৩০ ১৪৩০  

এক্সিম ব্যাংকের প্রশ্ন- ন্যাশনাল ব্যাংকের বিবৃতি কেন?

বিজবার্তা রিপোর্ট :

বিজ বার্তা

প্রকাশিত : ০৬:০৩ পিএম, ২৯ মে ২০২০ শুক্রবার

মামলায় ন্যাশনাল ব্যাংকের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ আনা হয়নি। স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে ন্যাশনাল ব্যাংকের বিবৃতি প্রদান করা অপ্রাসঙ্গিক এবং প্রকৃত ঘটনা ভিন্ন খাতে প্রবাহের অপচেষ্টা মাত্র

 

এক্সিম ব্যাংকের এমডিকে গুলী এবং হত্যা চেষ্টার ঘটনায় ন্যাশনাল ব্যাংকের ব্যাখ্যার জবাবের প্রেক্ষিতে ব্যাংকটির হয়ে জবাব দিয়েছেন আইনজীবী মিয়া মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম। বলা হয়, ন্যাশনাল ব্যাংক থেকে এক্সিম ব্যাংকের জনৈক পরিচালক কিংবা তার মেয়ে ও বাদীর ঋণ গ্রহণ এবং উপযুক্ত জামানত না থাকার বিষয়টি অপ্রাসঙ্গিক। এ ঘটনার সঙ্গে যার লেশমাত্র সম্পর্ক নেই।

 

বলা হয়, আশ্চর্যজনক যে, একটি পাবলিক ব্যাংক জনগণের বিশ্বাস ও আস্থার দিকে বিন্দুমাত্র লক্ষ্য না করে অবান্তর বিষয় অবতারণা করছে। ন্যাশনাল ব্যাংক ব্যাংক খাতের অস্থিতিশীলকারীদের এবং অপরাধীদের সহায়তা করে বিবৃতির মাধ্যমে ব্যাংক খাত ও ওই ব্যাংককে কলুষিত ও প্রশ্নবিদ্ধ করছে। যদি কোনো ঋণ বিষয়ে কোনো অনিয়ম থেকে থাকে, তা অবশ্যই ন্যাশনাল ব্যাংক কর্তৃপক্ষকে দায়ভার নিতে হবে।

 

এতে আরও বলা হয়, ন্যাশনাল ব্যাংকের পক্ষ থেকে রন হক সিকদার কর্তৃক এক্সিম ব্যাংক থেকে ঋণ গ্রহণ এবং ঘটনা সম্পূর্ণ অস্বীকার করা হয়, যা সর্বৈবই মিথ্যা। সিকদার গ্রুপ এক্সিম ব্যাংকের দীর্ঘদিনের গ্রাহক এবং ঋণগ্রহীতা। ৫০০ কোটি ঋণ গ্রহণের জন্য নিরাপত্তা জামানতে ঘোষিত মূল্য ও বাজার মূল্যে ফারাক থাকায় এবং জমির মালিকানা নিয়ে বিরোধ থাকায় এমডি ও অতিরিক্ত এমডি বিষয়টি অবতারণা করেন এবং দ্বিমত পোষণ করেন।

 

এরপর মামলার আসামি রন হক সিকদার ত্রোধান্বিত হয়ে এমডি ও অতিরিক্ত এমডিকে লক্ষ্য করে অতর্কিত গুলি বর্ষণ করেন, যা লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। এরপর তাদের গোপন আস্তানায় নিয়ে গিয়ে নির্যাতনসহ ভয়ভীতি প্রদর্শনের মাধ্যমে জোরপূর্বক সাদা কাগজে সাক্ষর আদায় করা হয়। এ মামলার বাদী ও ভিকটিমের নিকট ঘটনা প্রমাণের যথেষ্ট সাক্ষ্য ও প্রমাণ রয়েছে এবং আইনি প্রক্রিয়ায় তা প্রদর্শন ও প্রমাণ করা হবে।